পরকালীন প্রস্তুতি

কুর'আন-সুন্নাহর আলোকে পরকালীন মুক্তির আশায় একটি পরকালমুখী উদ্যোগ

পূর্ববর্তী জাতিসমূহের রীতিনীতি অনুসরণ নিয়ে কিছু কথা!

উপরের শিরোনাম থেকেই বুঝতে পেরেছেন এখানে কাদের কথা বলা হয়েছে। তারা হলো দুই পথভ্রষ্ট জাতি ইয়াহুদী ও খ্রিস্টান। যারা তাদের উপর অবতীর্ণ কিতাবকে অস্বীকার করেছে এবং যুগে যুগে নেককার মানুষদের কষ্ট দিয়েছে।


আর তাদের সেই নাফরমানি আজও চলছে। তারা আল্লাহর দেওয়া আদেশ-নিষেধকে অমান্য করে সত্যকে মিথ্যা, মিথ্যাকে সত্যে প্রতিপন্ন করছে। আবার হারামকে করছে হালাল, হালালকে করছে হারাম। তাই এই অভিশপ্ত দুই জাতির ভ্রান্ত আদর্শ থেকে রক্ষা পেতে সালাতের প্রতি রাকাতেই (সূরা ফাতিহার শেষ আয়াতের মাধ্যমে) আমরা আল্লাহর নিকট পানাহ্ চাই।


কিন্তু আসলেই কি আমরা বাস্তবিকঅর্থে  তাদের আদর্শ হতে দূরে রয়েছি? আমরা কি পেরেছি নিজের জীবনের সাথে ইসলামকে জড়িয়ে নিয়ে সেই অভিশপ্ত ইয়াহুদী-খ্রীষ্টানদের আদর্শকে বর্জন করতে?


না! আমরা খুব কমই এই ত্যাগ স্বীকার করতে রাজি হই। কারণ আমাদের সামনে থার্টি ফার্স্ট নামক অশ্লীলতা, আর ভ্যালেন্টাইন নামক নোংরামীর মত অসভ্য অনুষ্ঠান তারাই স্বীকৃতি দেয়। তারাই শিক্ষা দেয় ধর্মীয় উদারতার নামে 'মেরি ক্রিসমাস' বলে শুভেচ্ছা জানিয়ে তাদের অন্তর্ভুক্ত হয়ে যেতে। তারাই মদ পান, নারী ভোগকে আধুনিকতার অন্তর্ভুক্ত করে দিয়েছে। তারাই শিক্ষা দেয় কিভাবে নির্দোষকে দোষী সাব্যস্ত করে যুদ্ধ করা যায়, আবার একজন খুনীকে নোবেল দিয়ে আসল চেহারা ঢেকে রাখা যায়।


আসলে এসব আচরণ তাদের পক্ষে অসম্ভব কিছু না। কিন্তু সমস্যা তখনই, যখন একজন মুসলিম তাদের এই আচরণে ব্রেইন ওয়াশ হয়ে যায়। সে ভাবে না তার পরিচয় মুসলিম, তার জীবনবিধান ইসলাম। আসলে সে সত্য ধর্ম ইসলামের উপর সন্তুষ্ট হতে পারেনি। সে চিনতে পারেনি অভিশপ্ত ও পথভ্রষ্ট এই দুই জাতিকে। সে তাদের নির্ধারিত ভুল গন্তব্যের দিকে ছুটে চলছে বেহুশভাবে। যেখানে দিনশেষে শূন্যতা ও হতাশা ব্যতীত কিছুই পাবার নেই।


আবু সাঈদ খুদরী (রা) থেকে বর্ণিত, রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেন, 'নিঃসন্দেহে তোমরা তোমাদের পূর্ববর্তী উম্মতদের রীতির অনুসরণ করবে- এক বিঘতের বিপরীতে এক বিঘত, এক হাতের বিপরীতে এক হাত (অর্থাৎ হুবহু)। এমনকি তারা যদি কোন গুই সাপের গর্তে প্রবেশ করে, তোমরা তারও অনুসরণ করবে। আমরা জিজ্ঞাসা করলাম, হে আল্লাহর রাসূল, আপনি কি ইহুদী-খ্রীস্টানদের কথা বলছেন? উত্তরে তিনি বললেন, 'আর কাদের? (অর্থাৎ তাদেরই)' -(বুখারী)


অর্থাৎ মুসলিমদের একটি দল ইহুদী-খ্রীস্টানদের অনুসরণ করবে তা অনেক পূর্বেই ইসলাম বলে দিয়েছে। কিন্তু এই পথভ্রষ্ট দলটি থেকে আমি-আপনি ও আমার প্রিয়জন রক্ষা পেলাম কি না এই নিয়ে সচেতন হওয়াই বুদ্ধিমানের কাজ।


আর যারা (নিজেদের মুসলিম দাবি করেও) এতটুকু চিন্তা না করেই তাদের (ইয়াহুদী-খ্রীষ্টানের) দৃষ্টিকোণ থেকে নিজের জীবনকে সাজাতে চাচ্ছেন তাদের উপর থেকে ইসলাম তার দায়িত্ববোধ তুলে নিচ্ছে।


যেমনটি রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেছেন: 'সে আমাদের দলভুক্ত নয়, যে আমাদেরকে ছেড়ে অন্যদের সাদৃশ্য অবলম্বন করে।' -(তিরমিযী)


হে আল্লাহ! ইহুদী-খ্রীস্টানদের থেকে আমাদের আলাদা রাখুন। আমীন ।


লিখেছেন: আরিফুল ইসলাম দিপু

২টি মন্তব্য: