পরকালীন প্রস্তুতি

কুর'আন-সুন্নাহর আলোকে পরকালীন মুক্তির আশায় একটি পরকালমুখী উদ্যোগ

হেযবুত তাওহীদ : নতুন আরেক ফিতনা!

সমস্ত প্রশংসা আল্লাহ সুবহানাহু ওয়া তাআ'লা-র জন্য এবং অসংখ্য সলাত ও সালাম বর্ষিত হোক শেষ নাবী মুহাম্মাদ ﷺ এর প্রতি।


অতঃপর মুসলিম জাতিকে গোমরাহ করার জন্য তথাকথিত 'এমামুযযামান বা যামানার এমাম' খেতাব নেয়া 'জনাব মোহাম্মদ বায়াজীদ খান পন্নী' সাহেব 'হেযবুত তওহীদ' নামক সংগঠনের মাধ্যমে কাজ করছেন। মানুষকে যঈ'ফ ও জাল হাদীছ ভিত্তিক ঈমান, আক্বীদা ও আমল শেখাচ্ছেন।


দাজ্জাল বলতে তিনি বুঝেন : ইহুদি-খ্রিস্টানদের যান্ত্রিক সভ্যতা। অথচ দাজ্জাল মানুষরূপী দানব। যার বর্ণনা বিভিন্ন হাদীসে এসেছে । হাস্যকর ব্যাপার হল, যাকে তিনি দাজ্জাল মনে করেন, তিনি নিজেও সেসব যন্ত্র তার সংগঠনের প্রচারে ব্যবহার করেন। তার সংগঠনের প্রকাশিত পত্রিকা হল : দৈনিক দেশের পত্র। যা বিভিন্ন সরকারী ছুটির দিনেও প্রকাশিত হয়। অন্য কোন পত্রিকা ছুটির দিনে না পাওয়া গেলেও, এটি পাওয়া যায়। আর এতে বিভিন্ন প্রকার মিথ্যা তথ্যসহ নানারকম নায়ক-নায়িকার অশ্লীল ছবিতে ভরপুর থাকে!


হেযবুত তওহীদের প্রকাশনা সংস্থার নাম : তওহীদ প্রকাশন (তাওহীদ প্রকাশনী নয় কিন্তু)। জেনে রাখুন : যদি কেউ নিজেকে মুজাদ্দিদ (বা যামানার ইমাম) বলে দাবি করে, অথবা তার অনুসারীগণ তার জীবদ্দশাতেই তাকে মুজাদ্দিদ বলে দাবি ও প্রচার করে আর তিনি তা সমর্থন করেন এবং তার এই 'পদমর্যাদা'-র কারণে তার মতের বিশেষত্ব, অভ্রান্ততা বা পবিত্রতা দাবি করেন তবে তিনিও গোলাম আহমদ কাদিয়ানীর মত ভণ্ড প্রতারক বা শয়তান কর্তৃক প্রতারিত। তাই এ সংগঠনের যাবতীয় বই, পত্র-পত্রিকা, সিডি-ডিভিডি, লিখনী থেকে নিরাপদ দূরত্ব বজায় রাখুন।


দাজ্জাল সম্পর্কে সঠিক ধারণা পাওয়ার জন্য পড়ুন: http://www.assiratmission.com/search/label/দাজ্জাল

কোন মন্তব্য নেই