পরকালীন প্রস্তুতি

কুর'আন-সুন্নাহর আলোকে পরকালীন মুক্তির আশায় একটি পরকালমুখী উদ্যোগ

রোজার জন্য আমরা যে নিয়ত পড়ি তা সঠিক কিনা?

আসসালামু আলাইকুম, আমাদের দেশে অনেক ভুল আছে প্রচলিত যা পর্যায়ক্রমে আলোচনা করা হবে ইনশাআল্লাহ। আজ জানবো আমরা রোজার জন্য যে নিয়ত পড়ি তা সঠিক কিনা?

আসলে অনেকে এই নিয়ত মুখস্ত করতে সময় পার করেন, জানেন নিয়ত না করলে রোজা হয়না তাই এই চেষ্টা করেন, কিন্তু আজ জানবো আসলে সেই নিয়ত কি ও আমাদের প্রচলিত নিয়ত ঠিক কিনা?

দেখুন নিচের চিত্র আমরা যে নিয়ত টা পড়ি তা দেয়া হলো-


এখানে যে লাল কালি তে মার্ক করা হয়েছে সে অংশ এর অর্থ হলো "আমি আগামি কাল এর রোজা রাখবো"। এটা নিশ্চয়ই ভুল। নিয়ত করবো আজকের জন্য, আর হলুদ কালিতে মার্ক করা অংশ দ্বারা কোথাও - কোন হাদীসে আসেনি যে এটা পড়ে নিয়ত করতে হবে। কি নামাজ কি রোজা কি অন্য ইবাদত।

আসলে নিয়ত অর্থ- সংকল্প, সিদ্ধান্ত, প্রস্তুতি ও প্রয়োগ। সুন্নাহ নিয়ম হলো দোদুল্যমান না থাকা যে রোজা থাকবো কি থাকবোনা এরকম না থাকা। সিদ্ধান্ত নিতে হবে যে রোজা থাকবো? নাকি থাকবোনা, কারণ অসুস্থতা থাকতে পারে বা সফর। আর তা রমজান মাসে সুবহে সাদিক এর আগেই হতে হবে। অন্য কোন রোজা যেমন নফল রোজার ক্ষেত্রে সকালের পরেও যদি দেখা যায় খাবার রান্না হয়নি, বা শরীর খারাপ ছিলো সকালে ভালো হয়েছে এরকম অবস্থায় নিয়ত করে রোজা রাখা যাবে।

হাফসা (রাঃ) থেকে বর্ণিত । তিনি বলেন, রাসূলুল্লাহ (সাঃ) বলেছেনঃ "যে ব্যক্তি রাত থাকতে ফরয ছিয়ামের নিয়্যাত করলো না তার ছিয়াম হয় নি ।" -[আবু দাউদঃ ২৪৫৪; তিরমিযীঃ ২৭৩০]

কিন্তু রমজান মাসে সেই নিয়ত টা ভোরের আগেই করতে হবে। মনে রাখতে হবে - নিয়ত পড়া নয়, নিয়ত করা। নিয়ত করা মানে সংকল্প করা। তাহলে নিয়ত পড়া মানে সংকল্প পড়া। ভুল তা এখানেও বুঝা যাচ্ছে।

আপনারা মুফতি, মুহতামিমগণের কাছ থেকে এ বিষয়ে জানতে পারেন, তারা তাই বলবেন। আমরা ডাক্তারের কাছে না গিয়ে ঔষধ বিক্রেতার কাছে যাই এজন্য ভুল শিখি। যেতে হবে আলেমদের কাছে।


আরো পড়ুন: 

1 টি মন্তব্য: