পরকালীন প্রস্তুতি

কুর'আন-সুন্নাহর আলোকে পরকালীন মুক্তির আশায় একটি পরকালমুখী উদ্যোগ

যাদের নামাজ কবুল হয় না

কিছু নামাজী আছে, যাদের নামাজ আল্লাহ্ তা'আলা কবুল করেন না। ঐসব নামাজীদের পরিচয় নিম্নরূপ:

১. পলাতক ক্রীতদাস,
২. এমন স্ত্রী, যার স্বামী তার উপর রাগ করে আছে,
৩. এমন ইমাম, যার ইমামতী অধিকাংশ লোকে পছন্দ করে না।

রাসূলুল্লাহ (সা:) বলেন, তিন ব্যক্তির নামাজ তাদের কান অতিক্রম করে না; পলাতক ক্রীতদাস, যতক্ষণ না সে ফিরে এসেছে, এমন স্ত্রী যার স্বামী তার উপর রাগান্বিত অবস্থায় রাত্রিযাপন করেছে এবং সেই সম্প্রদায়ের ইমাম, যাকে লোকে অপছন্দ করে। (তিরমিযী, হাকেম, সিলসিলাহ সহীহা)

৪. এমন লোক, যে কোন গণকের কাছে ভাগ্য ও ভবিষ্যত জানার আশায় গণককে 'ইলমে গায়েবর মালিক' মনে করে হাত দেখায়। (সহীহুল মুসলিম)

৫. নেশাগ্রস্ত (শারাবী, মদ্যপায়ী)।

রাসূল (সা:) বলেন, "আমার উম্মতের যে ব্যক্তি মদ পান করবে, আল্লাহ্ তার ৪০ দিন নামাজ কবুল করবেন না।" (নাসাঈ)

৬. এমন নামাজী, যে নামাজ পড়ে কিন্তু নামাজে চুরি করে। অর্থাৎ ঠিকমতো রূকু-সিজদাহ করে না।

৭. এমন ব্যক্তি, যে আজান শুনেও বিনা ওজুরে মসজিদের জামাতে শরীক হয় না।

৮. এমন মহিলা, যে আতর বা সুগন্ধি মেখে মসজিদের উদ্দেশ্যে বের হয়।

৯. পিতা-মাতার অবাধ্য সন্তান।

১০. দান করে খোটাদানকারী ব্যক্তি।

১১. তাকদীর (ভাগ্য) অস্বীকারকারী।


আল্লাহ্ যেন আমাদেরকে উপরোক্ত শ্রেণীর নামাজীদের মধ্যে অন্তর্ভুক্ত না করেন, আমীন।

1 টি মন্তব্য: