পরকালীন প্রস্তুতি

কুর'আন-সুন্নাহর আলোকে পরকালীন মুক্তির আশায় একটি পরকালমুখী উদ্যোগ

ফিকহুস সিয়াম (পর্ব-৪)

● চার শ্রেণীর ব্যক্তির জন্য রমাদানের সাওমের ব্যাপারে সহজতা রয়েছে:

১. অসুস্থ ব্যক্তি ও মুসাফির
২. হায়েজ ও নিফাস অবস্থায় নারী
৩. গর্ভবতী ও স্তন্যদাত্রী
৪. বার্ধক্য কিংবা এমন রোগে আক্রান্ত হওয়া অক্ষম ব্যক্তি যার রোগমুক্তি সুদূর পরাহত।

- - শারহু উমদাতিল ফিকহ্ -ড. আব্দুল্লাহ বিন আব্দিল আযীয আল জিবরীন, পৃ: ৫৭৩-৫৭৭

● অসুস্থ ব্যক্তি ও মুসাফির:
"রমাদান মাসই হল সে মাস, যাতে নাযিল করা হয়েছে কোরআন, যা মানুষের জন্য হেদায়েত এবং সত্যপথ যাত্রীদের জন্য সুষ্পষ্ট পথ নির্দেশ আর ন্যায় ও অন্যায়ের মাঝে পার্থক্য বিধানকারী। কাজেই তোমাদের মধ্যে যে লোক এ মাসটি পাবে, সে এ মাসের রোযা রাখবে। আর যে লোক অসুস্থ কিংবা মুসাফির অবস্থায় থাকবে সে অন্য দিনে গণনা পূরণ করবে। আল্লাহ তোমাদের জন্য সহজ করতে চান; তোমাদের জন্য জটিলতা কামনা করেন না যাতে তোমরা গণনা পূরণ কর এবং তোমাদের হেদায়েত দান করার দরুন আল্লাহ তা’আলার মহত্ত্ব বর্ণনা কর, যাতে তোমরা কৃতজ্ঞতা স্বীকার কর।" -(সূরা বাকারাহ্, আয়াত: ১৮৫)


● অসুস্থ ব্যক্তির অবস্থাভেদে তার জন্য সাওমের বিধান:

□ সামান্য অসুস্থতা, যার ওপর সাওমের কোন প্রভাব নেই, যেমন: সামান্য ঠান্ডা কিংবা মাথা ব্যাথা ইত্যাদি। এক্ষেত্রে সাওম ভঙ্গ করা বৈধ নয়।

□ এমন অসুস্থতা যে সাওম পালন করলে তা কষ্টকর হবে, এক্ষেত্রে সাওম পালন করা মাকরুহ এবং সাওম ভঙ্গ করা মুস্তাহাব। কেননা, আল্লাহ্ তা'আলা বলেন, 'আল্লাহ তোমাদের সহজতা চান এবং কাঠিন্য চান না'।

□ যদি সাওমের কারণে রোগীর ক্ষতি বা রোগবৃদ্ধির আশংকা থাকে, তবে এক্ষেত্রে তার জন্য সাওম পালন করা নিষিদ্ধ। কেননা, আল্লাহ্ তা'আলা বলেন: 'আর তোমরা নিজেরা নিজেদেরকে হত্যা করো না।' -সূরা আন নিসা, আয়াত: ২৯

- (আশ শারহু আল মুমতি, ৬/৩৪১-৩৪২)


● মুসাফিরের অবস্থাভেদে তার জন্য সাওমের বিধান:

□ মুসাফিরের জন্য সাওম ভঙ্গ করা বৈধ, যদিও বা সফর আরামদায়ক কিংবা সংক্ষিপ্ত হয়। তবে শর্ত হচ্ছে সেই ভ্রমণ এমন হতে হবে যাকে মানুষ সফর বলে।

- শারহু উমদাতিল ফিকহ্ -ড. আব্দুল্লাহ বিন আব্দিল আযীয আল-জিবরীন, পৃ: ৫৭৪

[বি:দ্র: আরামদায়ক সফরে কেউ চাইলে সাওম পালন করতে পারে, কিন্তু কষ্টকর সফরে সাওম পালন না করাই উত্তম ।]

□ মুসাফির সাওম ভঙ্গ করতে পারবে নিজ এলাকা থেকে বের হওয়ার পর, কেননা এর পূর্বের অবস্থাকে সফর বলা যায় না। সালাত সংক্ষিপ্ত করার ক্ষেত্রেও একই বিধান প্রযোজ্য।

- আশ শারহু আল মুমতি, ৬/৩৪৬


আরো পড়ুন:

কোন মন্তব্য নেই