পরকালীন প্রস্তুতি

কুর'আন-সুন্নাহর আলোকে পরকালীন মুক্তির আশায় একটি পরকালমুখী উদ্যোগ

প্রসঙ্গ: আধুনিক দাস প্রথা


আমরা হয়ত অনেকেই জানিনা যে, সারা পৃথিবীতে লক্ষ লক্ষ মানুষ দাসপ্রথার শিকার হয়ে আছে। অস্ট্রেলিয়াভিত্তিক মানবাধিকার প্রতিষ্ঠান Walk Free Foundation এর The Global Slavery Index ২০১৬ এর রিপোর্ট অনুযায়ী যা ১৬৭টি দেশের ওপর চালানো হয়েছে তাতে দেখা যায় ৪৫.৮ মিলিয়ন লোক বিভিন্নভাবে দাসত্বের শিকার হয়ে আছে। [১]
.
মানবপাচারের মাধ্যমে বিভিন্ন দেশ থেকে পুরুষ, নারী, শিশুদেরকে নিয়ে আনা হয়।যার জন্যে মানবপাচার বর্তমানে বিশ্বের অন্যতম সুসংগঠিত ও লাভজনক ব্যবসায়ে পরিনত হয়েছে। ILO(International Labor Organization) রিপোর্ট মতে মানবপাচার থেকে প্রায় ১৫০ বিলিয়ন ইউএস ডলার অর্থ উপার্জিত হয়। [২]

পাচারের পরবর্তী সময়ে তাদেরকে বিভিন্ন কাজে নিয়োগ করা হয় যেমনঃ জোরপূর্বক কাজে লাগিয়ে দেওয়া হয়, কখনো নারীদেরকে পতিতালয়ে কাজ করার জন্য বলপ্রয়োগ করা হয় বা যৌনদাসী/রক্ষিতা রুপে রেখে দেওয়া হয় কখনো বা অঙ্গহানী করে ভিক্ষাবৃত্তিতে নিয়োগ করা হয়। ২০১২ সালের International Labor Organization এর রিপোর্ট মতে, প্রায় ২০.৯ মিলিয়ন লোককে জোরপূর্বক কাজে(ফোর্সড লেবার) যুক্ত করা হয়েছে। এদের মধ্যে প্রায় ৪,৫ মিলিয়নকে(২২%) যৌন নিপীড়ন, জোরপূর্বক পতিতাবৃত্তি করানো হয়[৩]। ১৫০বিলিয়্ন ডলারের মধ্যে ৯৯ বিলিয়ন ডলারই সেক্সুয়াল এক্সপ্লোয়েশন খাত থেকে আসে!!! 
.
অপরদিকে UNODC (United Nations Office on Drugs and Crime) এর ২০১১ এর রিপোর্ট মতে পাচারকৃতদের মধ্যে প্রায় ৪৯% ই হলো নারী।[৪] সাথে মোট পাচারের ৫৩% ই যৌন হয়রানীর জন্য হয়ে থাকে।[৫] ২০১২ এর রিপোর্ট এর মতে, ১০ জনের মধ্যে ৬জনই যৌন হয়রানীর শিকার হয়ে থাকে. [৬] 
.
এই ক্ষেত্রে পৃথিবীর বিভিন্ন দেশের অবস্থা দেখা নেওয়া যাক-
.
যুক্তরাষ্ট্রঃ-
.
The National Human Trafficking Resource Center এর রিপোর্ট অনুযায়ী আমেরিকার ২০১৬ সালের মানবপাচারের কিছু পরিসংখ্যান তুলে ধরা হলো
.
সর্বমোট রিপোর্টেড কেসের সংখ্যা ৭৫৭২টি। যার মধ্যে ৬৩৪০জনই নারী আর বাকী ৯৭৮জন মাত্র পুরুষ। যার অধিকাংশই যৌন দাসত্বের জন্যই বেশীরভাগ হয়ে থাকে যার সংখ্যা প্রায় ৫৫৫১টি।[৭]
.
ব্রিটেন
.
National Referral Mechanism রিপোর্ট মতে, ২০১৫ সালে ব্রিটেনে ২৪৫% মানবপাচার বৃদ্ধি পেয়েছে। ২০১৫ সালে প্রায় ৩২৬৬ জন পাচারের শিকার হয়েছে যেখানে ২০১৪ ও ২০১১ সালে এর পরিমান ছিলো যথাক্রমে ২৩৪০ ও ৯৪৮ জন।[৮]
.
ভারত
.
দক্ষিন এশিয়ায় আমাদের পাশের দেশ ভারতে লক্ষ লক্ষ নারী ও শিশুরা যৌন হয়রানীর শিকার হয় যেমনটা বিশেষজ্ঞরা অনুমান করে থাকেন। ভারতে নিজেদের রাজ্য থেকে তো বটেই তাছাড়াও বাংলাদেশ, নেপাল, বার্মা, মধ্য এশিয়া এবং অন্যান্য স্থান থেকে ভারতে নারী ও শিশুদেরকে পাচার করা হয়ে থাকে।[৯]
.
The Ministry of Women and Child Development এর রিপোর্ট মতে, ২০১৬ সালে ১৯২২৩ জন নারী ও শিশু পাচার করা হয়েছে (এটা শুধুমাত্র যতটুকু রিপোর্ট করা হয়েছে তার উপর ভিত্তি করেই পরিসংখ্যানকৃত কেননা অধিকাংশই ভয়ে রিপোর্ট করে না) যেখানে ২০১৫ সালে এর পরিমান ছিলো ১৫৪৪৮ জন, এ ক্ষেত্রে পশ্চিমবঙ্গ থেকেই বেশি রিপোর্ট পাওয়া গেছে। বলা যায় দক্ষিন এশিয়ায় ভারত মানব পাচারের অন্যতম কেন্দ্রে পরিনত হয়েছে। [১০]
.
ভারতের ছত্রিশগড়ে প্রতি বছর প্রায় ১৩৫০০০ শিশু নিখোজ হয়ে থাকে। [১১]
.
National Crime Records Bureau (NCRB) এর ২০১৩ এর রিপোর্ট মতে, ভারতে গত ৫বছরে মানবপাচার সংক্রান্ত কেস প্রায় ৩৮.৫% বৃদ্ধি পেয়েছে। এবং এখানে সর্বোচ্চ পাচার হয়েছে পশ্চিমবঙ্গ থেকেই।[১২]
Walk Free Foundation এর The Global Slavery Index ২০১৬ সালের রিপোর্ট অনুযায়ী ভারত শীর্ষে ছিলো। [১৩]
.
ইসলামের দাসপ্রথার ব্যাপারে যারা প্রশ্ন তোলেন তারা কি এইগুলো দেখেন?? এই অন্ধকার জগত সম্পর্কে তারা কিছু জানেন?? নাকি দেখে ও না দেখার আর জেনেও না জানার ভান করেন?? তথাকথিত মুক্তমনাদের তো এইগুলো নিয়ে তেমন সোচ্চার হতে দেখা যায় না। নাকি তাদের সকল আক্রমনের মূলে একমাত্র ইসলাম!!! তাও আবার নোংরা মিথ্যাচার দিয়ে!! 
=====
লেখকঃ হোসাইন শাকিল [ফেসবুক id: Hossain Shakil]
#সত্যকথন
.
.
তথ্যসূত্রঃ
======
[৩] International Labour Organization, ILO global estimate of forced labour: results and methodology, 2012, p. 13
[৪] United Nations Office on Drugs and Crime, Global Report on Trafficking in Persons, 2014, p.29
[৫] United Nations Office on Drugs and Crime, Global Report on Trafficking in Persons, 2014, p.33
[৬] United Nations Office on Drugs and Crime, Global Report on Trafficking in Persons, 2012, p. 7

অফিসিয়াল ওয়েব সাইট ঃ shottokothon.com  এবং response-to-anti-islam.com

ফেসবুক পেজঃ fb.com/shottokothon1

কোন মন্তব্য নেই