পরকালীন প্রস্তুতি

কুর'আন-সুন্নাহর আলোকে পরকালীন মুক্তির আশায় একটি পরকালমুখী উদ্যোগ

যেসব ছেলেদের বিয়ে করা উচিত না


নিচের পাচঁ প্রকার ছেলেকে বিয়ে করা থেকে বিরত থাকা উচিত-

১. যে পুরুষ দাড়ি রাখে না, এবং সুন্নত মোতাবেক চলে না।

হযরত আবু হোরায়রা (রাঃ) বর্ণনা করেন, রাসূলুল্লাহ (সাঃ) বলেছেন, তোমরা মোচ একেবারে কেটে ফেলো এবং দাড়ি বড় করো।
(মুসলিম ১/১২৯)

২. যে পুরুষ টাকনুর নিচে কাপড়। এবং মেয়েদের মত হাতে, কানে অলংকার ব্যবহার করে।

হযরত আবু হুরাইরা (রা.) হতে বর্ণিত হয়েছে যে, হুযুর পাক (সা.) ইরশাদ করেছেন, যে ব্যক্তি অহংকারবশত পায়ের গিরার নিচে লুংঙি বা পায়জামা ঝুলিয়ে দেয়, রোজ কিয়ামতে আল্লাহ পাক তার দিকে ফিরে তাকাবেন না। (বুখারি, মুসলিম, মিশকাত:৩৭৩)

৩. যে পুরুষ বাজে নেশা করে।
অর্থাৎ মদ, সিগেরেট ইত্যাদি বিভিন্ন ধরনের নেশায় আসক্ত।

রাসুল (সা:) বলেছেন, আমার প্রভু তাঁর মহা ক্ষমতার শপথ করে বলেছেন, আমার যে কোন বান্দা এক ঢোক মদ পান করবে, আমি নিশ্চয় তাকে অনুরূপ পঁচা পুজ খাওয়াবো। (মিশকাতঃ ৩১৮)

৪. যে পুরুষ নিজে পর্দা করে না এবং তার স্ত্রীকেও পর্দায় রাখতে চায় না।

হুজুর পাক (সাঃ) বলেন, তিন প্রকার লোকের জন্য আল্লাহ বেহেশত হারাম করে দিয়েছেন। যথাঃ দৈনন্দিন মদ পানকারী, পিতামাতার অবাধ্যতা এবং
দাইয়ূস অর্থাৎ যে তার পরিবারের
অপকর্মসমূহকে স্বীকার করে নেয়।
অর্থাৎ তার পরিবারের অপকর্মসমূহকে দেখেও দেখে না। বাধা দান তো দুরে থাক উপরন্ত আশ্রয় প্রশ্রয় দেয়।

৫. অসৎ উপায়ে উপার্জন করে।

রাসুল (সাঃ) বলেন, ফরযসমুহ আদায়ের পরে হালাল উপার্জন করা ফরয।

কোন মন্তব্য নেই