পরকালীন প্রস্তুতি

কুর'আন-সুন্নাহর আলোকে পরকালীন মুক্তির আশায় একটি পরকালমুখী উদ্যোগ

The Path to Guidance (Part-1)

পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু আল্লাহর নামে শুরু

● আল্লাহ এমন এক সত্তা যার নিকট আমি প্রশ্ন করি এবং এর উত্তরও আশা করি ।

● যেহেতু আল্লাহ সুবাহানওয়া তাআ'লা ইহকালে ও পরকালে মানুষের প্রতি দয়াশীল, সেহেতু তিনি যখন চান তাদের দিয়ে উত্তম কাজ করিয়ে বরকতময় করে তুলেন ।

● প্রকৃতপক্ষে মানুষের উপর আল্লাহর দয়াস্বরূপ তাদের কর্তৃক সু-শিক্ষা ও ভালো উপদেশ দেওয়ার যোগ্যতা রয়েছে ।

● মহিমান্বিত আল্লাহ তাআ'লা, ঈসা (আঃ) কে সম্বোধন করে বলেছেনঃ "আমি (ঈসা ইবনে মরিয়্যাম) যেখানেই থাকি তিনি (আল্লাহ) আমাকে বরকতময় করেছেন" -(সূরা মারইয়ামঃ ৩১)

● অর্থাৎ, একজন ভালো শিক্ষক, একজন দাঈ এমন হবে যে অন্যদেরকে আল্লাহর কথা সস্মরণ করিয়ে দিবে এবং আল্লাহকে মানার জন্য প্রণোদিত করবে । তাই এই কাজটা মানুষের উপর দয়াস্বরূপ ।

● যে কেউ এই বৈশিষ্ট্যগুলো (উত্তম শিক্ষা ও উপদেশ দেওয়া) কে বর্জন করলে, সে যেন দয়া বহির্ভূত হইল এবং তার থেকে বরকত দূরে সূরে গেলো । এমনকি, পূণ্যবান কেউ তার সাথে সময় অপচয় করা থেকে বিরত থাকতে হবে । (কারণ) যদি সে তার সাথে সময় কাটায় তাহলে তার অন্তরও কুলষিত হতে পারে ।


মূলঃ হাফিজ ইবনুল কায়্যিম (রহঃ)
অনুবাদকঃ আরিফুল ইসলাম দিপু

কোন মন্তব্য নেই