পরকালীন প্রস্তুতি

কুর'আন-সুন্নাহর আলোকে পরকালীন মুক্তির আশায় একটি পরকালমুখী উদ্যোগ

ইসলাম, ঈমান, হিজরত ও জিহাদ

এক ব্যক্তি রাসুল (সাল্লাল্লাহু 'আলাইহি ওয়া সাল্লাম) এর নিকট এসে জিজ্ঞাসা করলো, "হে আল্লাহর রাসূল! ইসলাম কী?"

রাসূল (সাল্লাল্লাহু 'আলাইহি ওয়া সাল্লাম) বললেন,"ইসলাম হলো তোমার অন্তর আল্লাহ তা’আলার আনুগত্যের জন্য তৈরী হয়ে যাওয়া এবং কোন মুসলিম তোমার হাত ও জবান থেকে হেফাজতে থাকা।"

লোকটি জিজ্ঞাসা করলো, "কোন ইসলাম উত্তম?"

রাসূল (সাল্লাল্লাহু 'আলাইহি ওয়া সাল্লাম) বললেন, "পরিপূর্ণ ঈমান রাখা"।

লোকটি জিজ্ঞাসা করলো, "ঈমান কী?"

রাসূলুল্লাহ্ (সাল্লাল্লাহু 'আলাইহি ওয়া সাল্লাম) বললেন, "ঈমান হলো আল্লাহ তা’আলার ওপর বিশ্বাস স্থাপন করা, ফেরেশতাদের উপর বিশ্বাস করা, আসমানী কিতাব সমূহের উপর, রাসুলগণের ‍ উপর এবং মৃত্যুর পর পুনরায় জীবিত হওয়ার উপর বিশ্বাস স্থাপন করা"।

লোকটি জিজ্ঞাস করলো, "উত্তম ঈমান কোনটি?"

রাসূলুল্লাহ (সাল্লাল্লাহু 'আলাইহি ওয়া সাল্লাম) বললেন, "হিজরত"।

লোকটি জিজ্ঞাসা করলো, "হিজরত কী?"

রাসূলুল্লাহ্ (সাল্লাল্লাহু 'আলাইহি ওয়া সাল্লাম) বললেন, "হিজরত হলো তুমি সকল মন্দকে পরিহার করবে।"

সে আবার জিজ্ঞাস করলো, "উত্তম হিজরত কোনটি?"

রাসূলুল্লাহ্ (সাল্লাল্লাহু 'আলাইহি ওয়া সাল্লাম) বললেন, "জিহাদ"।

সে জিজ্ঞাসা করলো, "জিহাদ কী?"

রাসূলুল্লাহ্ (সাল্লাল্লাহু 'আলাইহি ওয়া সাল্লাম) বললেন, "যখন তোমরা কুফফারদের সম্মুখীন হবে তখন তাদের সাথে যুদ্ধ করা"।

সে পুনরায় জিজ্ঞাসা করলো, "উত্তম জিহাদ কোনটি?"

রাসূলুল্লাহ (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম) বললেন, "উত্তম জিহাদ হলো তোমার ঘোড়ার পা কেটে যাবে এবং তোমার রক্ত প্রবাহিত হযে যাবে। তুমি শহীদ হয়ে যাবে, সাথে তোমার ঘোড়াও কর্তিত হবে"।

[মুসনাদে আহমদ ৪/১১৪। হাদিসের মান সহীহ।]

কোন মন্তব্য নেই