পরকালীন প্রস্তুতি

কুর'আন-সুন্নাহর আলোকে পরকালীন মুক্তির আশায় একটি পরকালমুখী উদ্যোগ

ফিকহুস সিয়াম (পর্ব-১)

● সিয়াম কি?

'সিয়াম' শব্দের শাব্দিক অর্থ বিরত থাকা। শরীয়াতের পরিভাষায় সিয়াম অর্থ হলো, আল্লাহ্ পাকের ইবাদাতের উদ্দেশ্যে ফজরের শুরু থেকে সূর্যাস্ত পর্যন্ত সিয়াম ভঙ্গকারী যাবতীয় বিষয় (যেমন: পানাহার, স্বামী-স্ত্রীর সহবাস ইত্যাদি) থেকে বিরত থাকা।

● ইসলামে সিয়ামের অবস্থান কতটুকু?

রমাদানের সিয়াম পালন করা ইসলামের পাঁচটি স্তম্ভের একটি। কেউ যদি সিয়ামের বাধ্যতামূলক হওয়াকে অস্বীকার করে, তবে সে মুসলিম থাকে না। আর যে এর বাধ্যতামূলক হওয়াকে স্বীকার করে কিন্তু তা পালন করে না, তবে সে ফাসিক (অর্থাৎ পাপাচারী)।

হবরত ইবনে উমর (রা.) বলেন, আল্লাহর রাসূল (সাঃ) বলেছেন, "ইসলাম পাঁচটি স্তম্ভের উপর স্হাপিত (এগুলো হল) এই সাক্ষ্য দেওয়া যে, আল্লাহ ব্যতীত আর কোনো ইলাহ নেই এবং মুহাম্মদ আল্লাহর রাসূল, সালাত আদায় করা, যাকাত আদায় করা, হজ্জ আদায় করা এবং রমাযানের সিয়াম পালন করা।" -[বুখারীঃ ৭]

● সাওমের নিয়ত কি ?

প্রতিটি ইবাদাতের জন্যই নিয়ত শর্ত। আর ইবাদাতের সাওয়াবও নিয়তের উপর নির্ভরশীল । তবে নিয়ত অর্থ অন্তরের সংকল্প। মুখে নিয়ত উচ্চারণ করা শরীয়তসম্মত নয়। কেননা নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম মুখে নিয়ত পাঠ করা শেখাননি । তাছাড়া আল্লাহ্ সুবহানওয়া বান্দার অন্তর সম্পর্কে অবগত। তাই সাওমের জন্য আরবী বা বাংলায় লেখা নিয়ত মুখস্ত করা অপ্রয়োজনীয়। তবে রমাদানের সাওমের জন্য অন্তরে সংকল্প থাকতে হবে।

● গোটা রমাদানের জন্য একবার নিয়ত যথেষ্ট কি?

রমাদানের সাওম কিংব অন্যান্য যে সমস্ত সাওম (যেমন: রমাদানের দিবসে স্ত্রীর সাথে সহবাস করার কাফফারা হিসেবে টানা দুই মাস সাওম) একটানা প্রতিদিন রাখা হয়, সেগুলোর জন্য শুরুতে সংকল্প থাকাই যথেষ্ট; যদি না মাঝখানে কোন একটা ভঙ্গ হয়। (তাওহীদুল আহকাম, ৩/৪৬৭-৪৬৮)

আরো পড়ুন:

কোন মন্তব্য নেই